1. mostafi.ponie@gmail.com : Mostafi Ponie : Mostafi Ponie
  2. uzzal.arpon@gmail.com : Sajuti Nur : Sajuti Nur
  3. editor@sopnosarothi.com : uzzal.arpon :
বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
শুদ্ধাচার কৌশল অব্যহত চর্চার মাধ্যমে জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ও দেশ বিনির্মাণে স্বপ্নসারথি’র সংকল্প দৃঢ়। সুন্দর অভ্যাস গড়তে আপনিও এগিয়ে আসুন। লিখুন, মতামত দিন।
শিরোনাম:
জন্মদিন অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধা এমপি নাসির উদ্দিন, প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ট নেতৃত্ব, দেশপ্রেম ধারন করতে হবে চৌগাছায় আ,লীগ নেতা শামীম কবিরের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন চৌগাছায় এতিমখানা নির্মাণে সামছুল হক -হাসিনা বেগম ফাউন্ডেশনের সহায়তা প্রদান চৌগাছায় নিহত ছাত্রলীগ নেতার স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চৌগাছায় সামছুল হক-হাসিনা বেগম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মসজিদ উন্নয়নে সহায়তা প্রদান চৌগাছায় বঙ্গবন্ধু স্মৃতিসৌধ সংরক্ষণ কমিটির উদ্যোগে বৃক্ষ রোপন ও বিতরন চৌগাছা নির্বাহী অফিসারের নিকট মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিগ্রন্থ হস্তান্তর চৌগাছায় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চৌগাছায় আওয়ামীলীগ নেতা কাশেমের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চৌগাছায় কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরন

বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ

  • আপডেট টাইম: শুক্রবার, ৭ আগস্ট, ২০২০
  • ১৭৩ বার দেখা হয়েছে

নবনূর অর্পণ ।। জাতীয় শোকের মাস আগষ্ট। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের সবাইকে শত্রুরা হত্যা করে। শিশু রাসেলকেও ওরা ছাড়েনি। গুলির আঘাতে বুকটা ঝাঝরা করে দিয়েছিল। শুধু বঙ্গবন্ধুর দুই মেয়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহেনা প্রাণে বেঁচে যান দেশে না থাকার কারনে। বঙ্গবন্ধু কেনো এত গুরুত্বপূর্ণ সেই কথাগুলো আমি আজ বলব। তবে আমি যা বলব তা আমি বিভিন্ন বই থেকে, পত্রিকা থেকে পড়ে জানতে পেরেছি। আর দাদা-দাদির কাছ থেকেও শুনেছি।
বন্ধুরা আমরা সবাই জানি, ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ বাঙালি জাতির জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন। মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা লাভ করেছি আমাদের এই প্রিয় দেশ বাংলাদেশ। লাখো শহিদের রক্তে ভেজা আমাদের এই স্বাধীনতা। ২৬ শে মার্চ বঙ্গবন্ধুর ঘোষনার মধ্য দিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়। মুক্তিযুদ্ধ শুরুর এক মাসের মধ্যে গঠন করা হয় বাংলাদেশের প্রথম সরকার যা মুজিবনগর সরকার নামে পরিচিত। ১৭ই এপ্রিল এ সরকার শপথ গ্রহণ করে। বঙ্গবন্ধুকে রাষ্ট্রপতি হিসেবে ঘোষনা করা হয়।
বঙ্গবন্ধু পাকিস্থান কারাগারে বন্দী থাকা অবস্থায় উপ রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেন। এ সরকারের অন্যতম সদস্য হলেন প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ। মুজিবনগর সরকারের জন্য মক্তিযুদ্ধে গতি বৃদ্ধি পায়। সারাদেশে খুব যুদ্ধ হয়। পাকসেনারা নিরিহ মানুষকে গুলি করে হত্যা করে। নারীদের নির্যাতন করে। ঘরবাড়ি, দোকান, মসজিদ, মন্দির, প্রতিষ্ঠান, স্কুল, মাদ্রাসা জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দেয়। আমরা যেন আমাদের অধিকার নিয়ে প্রতিবাদ না করতে পারি। স্কুলে যেতে না পারি। আমরা যেন মাথা উচু করে কথা বলতে না পারি। সেই কারনে যুদ্ধ দিয়ে আমাদের থামিয়ে দিতে চাই। কিন্তু আমরা মানতে পারিনি। আমরা সাহস নিয়ে যুদ্ধ করে লড়াই করি। যুদ্ধে পাশের দেশ ভারত আমাদের সাহায্য করে। সেই যুদ্ধ আমাদের এলাকায়ও ঘটেছিল। আমি দাদা, দাদির কাছে শুনেছি। বিভিন্ন বইয়ে পড়েছি। আমার যেখানে বাড়ি সেই গ্রামের নাম জগন্নাথপুর।
১৯৭১ সালে জগন্নাথপুর গ্রামে বিশাল যুদ্ধ হয়। জগন্নাথপুর গ্রামে পশ্চিম পাশে মুক্তিযুদ্ধের সময় একটি আমবাগান ছিল। এখন সেখানে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের কারনে স্কুল তৈরি করা হয়। স্কুলের নাম মুক্তিনগর স্কুল। এখন সেখানে আম বাগান নেই। স্কুল হবার কারনে সব আম গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। সেই আম বাগানে মুক্তিযুদ্ধ হয়। সেখানে মুক্তিযুদ্ধের সময় দুটি পক্ষের অর্থাৎ মুক্তিযোদ্ধারা, ভারতীয় সেনা এবং পাকিস্থানিদের বিশাল যুদ্ধ হয়। যুদ্ধর এক সময় দু’পক্ষের গোলাবারুদ, গুলি ফুরিয়ে যায়। এরপর তারা হাতাহাতি, মুখোমুখি যুদ্ধে অংশ নেয়। মুখোমুখি যুদ্ধে তারা কিল, ঘুষি, লাথালাথি করে। তারপর রক্তাত্ব হয় সেই আমবাগান। ২২ নভেম্বর মুক্ত হয় এই এলাকা। এ দিন পাকসেনারা শিয়ালের মত লেজ গুটিয়ে পালিয়ে যায়। তাই আমরা প্রথম বিজয় অর্জন করি। এই আম বাগানে বা স্কুল মাঠে মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্য তৈরি হয়েছে। ছোট মিউজিয়াম হয়েছে। তবে মিউজিয়ামে কিছু নেই। শিশুদের বসার জায়গা আছে। দোলনা আছে। শহিদ মিনার আছে। খুব সুন্দর দেখতে। শিশুদের জন্য অবসরে সময় কাটানোর সুন্দর জায়গা হয়েছে। আমিও গ্রামে গেলে সেখানে যাই। খুব ভালোলাগে।
বন্ধুরা ১৯৭১ সালের ২৫ শে মার্চ পাকিস্থানি সেনাবাহানি ঢাকাতে ঘুমন্ত নিরিহ মানুষকে নির্বিচারে হত্যা করে। ২৫ মার্চ মধ্য রাতের পরে বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পূর্ব মুহুর্তে অর্থাৎ ২৬ শে মার্চ প্রথম প্রহরে ওয়ারলেস বার্তায় তিনি স্বাধীনতা ঘোষনা করেন। এরপর এই ঘোষনার মধ্য দিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়। বিজয় যখন নিকটে তখন ১০ই ডিসেম্বর থেকে ১৪ই ডিসেম্বর পর্যন্ত পাক সেনারা কবি, ডাক্তার, শিক্ষক, সাংবাদিক, শিল্পী ও জ্ঞানীগুণীদের ধরে নিয়ে হত্যা করে। যাতে আমরা যেন আর বুদ্ধি খাটাতে না পারি। আমরা যেন নিজের পায়ে দাঁড়াতে না পারি।
তারপরও ১৬ই ডিসেম্বর পাকিস্থানীর ৯৩ হাজার সৈনিক আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য হয়। ফলে সত্যিকারের বিজয় অর্জিত হয়। ৩০ লাখ মানুষের রক্ত ২ লাখ মা, বোনের সভ্রমের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করি।
এই স্বাধীনতার প্রেরণা ও সাহস যুগিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর জন্ম না হলে আমরা আর স্বাধীন দেশ পেতাম না। সুন্দর একটি পতাকা পেতাম না। আমরা সুন্দরভাবের লেখাপড়া শিখতে পারতাম না। পুকুরে সাঁতার কাটতে পারতাম না। মাছ ধরতে পারতাম না। মাঠে জমিতে ফসল লাগাতে পারতাম না। আকাশে ঘুড়ি ওড়াতে পারতাম না। আমরা হাসি, আনন্দ ভুলে যেতাম। পাকিস্থানীরা আমাদের কোন অধিকার দিত না। আমাদের যোগ্যতা থাকলেও চাকর বানিয়ে রাখত। এই যুদ্ধে আমরা স্বাধীন হয়েছি। আমরা পাকিস্থানীদের হাত থেকে এখন মুক্ত। বঙ্গবন্ধু আজ নেই। দেশকে ভালোবাসলে বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসা হবে। আমাদের উচিৎ দেশকে ভালোবাসা। আমাদের বুদ্ধি দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। তাহলেই বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা করা হবে। বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসা হবে, দেশকে ভালোবাসা হবে। জাতীয় শোকের মাসে আমরা শফত করি, আমরা যেন খারাপ কাজ না করি, দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র না করি। ভালো কাজের সাথে থাকি। তাহলে আমার, আপনার সকলের বাংলাদেশ হবে খুব সুন্দর একটি দেশ।

নবনূর
পঞ্চম শ্রেণি
বেলা প্রি-ক্যাডেট স্কুল, চৌগাছা যশোর।

স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

7 responses to “বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ”

  1. Like!! I blog frequently and I really thank you for your content. The article has truly peaked my interest.

  2. I like the valuable information you provide in your articles.

  3. I learn something new and challenging on blogs I stumbleupon everyday.

  4. I am regular visitor, how are you everybody? This article posted at this web site is in fact pleasant.

  5. SMS says:

    Your site is very helpful. Many thanks for sharing!

  6. uzzal.arpon says:

    I am Nobonur.Thanks for your comment. I am very happy that you have read my writing. Good luck to me.

  7. Salam says:

    Nice writing abbu.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরো লেখা
©All rights reserved ©sopnosarothi
কারিগরী সহায়তা: মোস্তাফী পনি