1. mostafi.ponie@gmail.com : Mostafi Ponie : Mostafi Ponie
  2. uzzal.arpon@gmail.com : Sajuti Nur : Sajuti Nur
  3. editor@sopnosarothi.com : uzzal.arpon :
শনিবার, ০৮ অগাস্ট ২০২০, ১২:৫৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
শুদ্ধাচার কৌশল অব্যহত চর্চার মাধ্যমে জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ও দেশ বিনির্মাণে স্বপ্নসারথি’র সংকল্প দৃঢ়। সুন্দর অভ্যাস গড়তে আপনিও এগিয়ে আসুন। লিখুন, মতামত দিন।

শিকলে বন্দি শিশু আঁখিকে দেখতে গেলেন নবাগত ইউএনও

  • আপডেট টাইম: বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০
  • ৭০ বার দেখা হয়েছে

আব্দুস সালাম নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের চৌগাছার জামিরা গ্রামে অসহায় শিশু আঁখির (৭) শিকল পরা বন্দি জীবনের খবরটি সাংবাদিকদের মাধ্যমে জানতে পেরে আঁখিকে দেখতে গেলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এনামুল হক। আজ বৃহস্পতিবার সকালে জামিরা গ্রামে তিনি ছুটে যান আঁখির পরিবারে। এ সময় তিনি নগদ কিছু টাকা ও বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন বৃদ্ধ দাদার কাছে। শিশুটির খোঁজখবর নেয়ার কারনে নির্বাহী কর্মকর্তাকে ধন্যবাদ জানান চৌগাছা প্রেসক্লাবের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দসহ এলাকার মানুষ।
উপজেলার জামিরা গ্রামের দরিদ্র আশরাফুল ইসলাম ও ফুলবানুর মেয়ে হচ্ছে আঁখি (৭)। আঁখির বয়স যখন ৭ মাস তখন পিতামাতা পৃথক হয়ে যায়। বর্তমানে মা অন্যত্র বিয়ে করে সংসার করছে। বাবা আশরাফুল ইসলাম রিকশা চালক। জীবিকার সন্ধানে প্রতিদিন গ্রাম থেকে যশোর শহরে চলে যায়। দিনের পরিশ্রম শেষে সে রাতে বাড়ী ফেরে। মেয়েকে ঠিকমত দেখাশুনা করতে পারেনা। ছোটবেলা থেকে দাদা-দাদী আঁখিকে দেখাশুনা করত। কিন্তু দাদী প্যারালাইজড হয়ে বিছানায় পড়ে আছে। দাদাও খুবই অসুস্থ্য। পাশের মসজিদের মোয়াজ্জেম। বয়সের ভারে তিনি কাজকর্ম করতে পারেন না। এই অবস্থায় আঁখির খিদে লাগলে সে বাড়ী থেকে বিভিন্ন স্থানে চলে যায়। লোকজনের নিকট থেকে চেয়ে খায়। বৃদ্ধ দাদা আঁখিকে সামলাতে অক্ষম হওয়ায় তাকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে।
এই খবরটি দৈনিক গ্রামের কাগজ, কালের কণ্ঠে প্রকাশিত হয়। খবরটি প্রকাশের সাথে সাথে বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে শিশু আঁখির সার্বিক খোঁজ খবর নেয়া হয়। শিশুটির জন্য মানবিক সহায়তায় এগিয়ে আসার আশ্বাসও দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষে একজন প্রতিনিধিকেও পাঠিয়ে শিশু আঁখির খোঁজখবর নেয়া হয়েছে। খবরটি প্রকাশিত হলে চৌগাছা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ, পৌর মেয়র নূর উদ্দীন আল মামুন হিমেল, ব্যবসায়ী হাসিবুর রহমান হাসিব শিশু আঁখির জন্য কিছু আর্থিক সহায়তা, বইপত্র, জামাকাপড় ও খাদ্যসামগ্রী কিনে দেন।
বুধবার দুপুরে প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় হলে সাংবাদিকবৃন্দ শিশুর আঁখির বিষয়ে নির্বাহী কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। শিশুটির অমানবিক জীবনের গল্প জেনে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করেন। এ সময় তিনি শিশুটিকে দেখতে যাওয়ার জন্য ইচ্ছে পোষণ করেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হক শিশুটিকে দেখতে জামিরা গ্রামে ছুটে যান। এ সময় তিনি শিকল পরা অবস্থায় শিশুটিকে দেখে মর্মাহত হন। শিশুটিকে শিকল মুক্ত করে নিজের কাছে আনেন। শিশুটির এমন অবস্থার বিষয়ে বৃদ্ধা দাদা ও এলাকাবাসির সাথে তিনি কথা বলেন। এ সময় তিনি শিশুটির পরিবারে ২ হাজার টাকা ও খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেন। একই সাথে সরকারি সহযোগিতার দেবার আশ্বাস প্রদান করেন তিনি। এ সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি নারায়ন চন্দ্র পাল, প্রেসক্লাবের সভাপতি আলমগীর মতিন চৌধুরী, ইউপি সদস্য আনার আলীসহ এলাকার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার আন্তরিকতা ও শিশুটির খোঁজখবর নেয়ায় প্রেসক্লাবের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দসহ জামিরা গ্রামের মানুষ ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

5 responses to “শিকলে বন্দি শিশু আঁখিকে দেখতে গেলেন নবাগত ইউএনও”

  1. Like!! Great article post.Really thank you! Really Cool.

  2. SMS says:

    Your site is very helpful. Many thanks for sharing!

  3. uzzal.arpon says:

    মন্তব্য করার জন্য সকলকে ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরো লেখা
©All rights reserved ©sopnosarothi
কারিগরী সহায়তা: মোস্তাফী পনি